১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার

কুমিল্লার সমাবেশ থেকে সরকারকে লাল কার্ড দেখানো হবে: মোশাররফ 

 

কুমিল্লা বিভাগীয় সমাবেশ থেকে আওয়ামী লীগ সরকারকে লাল কার্ড দেখানো হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ।

শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে কুমিল্লা শহরে বিভাগীয় সমাবেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

মোশারফ হোসেন বলেন, ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশের জন্য নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আমরা অনুমতি চেয়েছি। সরকারের পক্ষ থেকে ইজতেমার ময়দান ও পূর্বাচলে সমাবেশ করার কথা বলেছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পর্যন্ত আসছেন, পল্টন পর্যন্তও আসবেন।

সমাবেশের পূর্বে সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে তিনি বলেন, কুমিল্লা বিএনপি’র সমাবেশে গণমানুষের ব্যাপক উপস্থিতি আজ করতে পেরে ইতোমধ্যে অনির্বাচিত অবৈধ সরকার ও তাদের মদনপুষ্ট পুলিশ বাহিনী কুমিল্লা বিভাগের বিভিন্ন জেলা উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে বীভৎসনারকীয় তাণ্ডব শুরু করেছে। তাদের হিংস্রতা থেকে নারী শিশু এমনকি গর্ভবতী নারীরাও রেহাই পাচ্ছে না। বিএনপি নেতা কর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হামলা মেছাদের বাড়িতে না পেয়ে তাদের পরিবার-পরিজনের উপর হামলা তাদের বাড়ির সামনে হেলমেট পরে সশস্ত্র অবস্থায় মোটরসাইকেলে মহড়া হুমকি, ধমকি পুলিশ কর্তৃক গায়েবী মামলাসহ নানান কায়দায় ভয়-ভীতি প্রদর্শন করেছে সরকারি দলের অস্ত্রধারী ও পুলিশ বাহিনী।

নেতা কর্মীদের উপর অত্যাচার নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কুমিল্লা বিভাগের প্রায় প্রতিটি জেলা উপজেলায় গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে সরকারী দল এবং পুলিশ নারকীয় তাণ্ডব চালাচ্ছে। তবে তারা যতই নির্যাতন নিপীড়ন করুক কুমিল্লা বিভাগবাসীকে আগামীকাল কোন অপশক্তি দমিয়ে রাখতে পারবেনা। কুমিল্লা ঐক্যবদ্ধ মুক্তি কামে জনতা আগামীকাল ঐতিহাসিক টাউন হল ময়দান থেকে শেখ হাসিনার অনির্বাচিত অবৈধ সরকারকে লাল কার্ড প্রদর্শন করবে।

মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারা বলেন- খেলা হবে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল এ দেশের জনগণের জন্য রাজনীতি করে। স্বার্থের জন্য রাজনীতি করে, আমরা গণতান্ত্রিক শান্তিপূর্ণ করি। যাদের কোন রাজনৈতিক শক্তি নেই, জনসমর্থন নেই, যারা দিনের তারাই খেলা হবে বলে। খেলা বলতে তারা আবারও দিনের ভোট রাতে করার ইঙ্গিত দিচ্ছেন। আমরা খেলায় বিশ্বাস করি না, রাজনীতিতে বিশ্বাস করি। আমরা এদেশের গণতন্ত্র পূর্ণ প্রতিষ্ঠা করতে চাই, এদেশের মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে চাই, দেশের অর্থনীতিকে লুটপাট পাচার করে ধ্বংস করে দিয়েছে সেই অর্থনীতিকে মেরামত করতে চাই। এটা খেলা নয়, রাষ্ট্রের জাতির স্বার্থে এবং আমাদের অস্তিত্বের স্বার্থে আমরা রাজনীতি করছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাস বুলু, কুমিল্লা বিভাগীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোস্তক মিয়া, সহসাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সায়েদুল হক সাঈদ, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক হাজী আমিনুর রশিদ ইয়াসিন, বিএনপি নেতা অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সেলিম ভূঁইয়া, হেলাল খান, মোঃ মেজবা, এডভোকেট রফিক সিকদার, ইকরামুল হক বিপ্লব, শেখ মোহাম্মদ শামীম, সালাউদ্দিন ভূঁইয়া শিশির, হেনা আলাউদ্দিন, হাজী মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, উদবাতুল বারী আবু, ইউসুফ মোল্লা টিপু, বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার, বিএনপি’র মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান প্রমুখ।

সর্বশেষ নিউজ