৩১ জানুয়ারী ২০২৩, মঙ্গলবার
--বিজ্ঞাপন-- Nagad

ফখরুল -আব্বাসের কাছে কী জানতে চায় ডিবি?

বিশেষ প্রতিনিধি
spot_img

 

শুক্রবার ভোররাত থেকেই ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি)পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। বেশকিছু বিষয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে ডিবি পুলিশ।

তবে নয়াপল্টনে গত বুধবারের সংঘর্ষ, বিএনপি কার্যালয়ের ভেতরে বোমা পাওয়া এবং আগামীকালের ঢাকার গণসমাবেশের বিষয়েই মূলত জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এমন তথ্যই জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

ডিবি পুলিশ বলছে, আগামীকালের সমাবেশ ঘিরে নাশকতা ঘটানো হতে পারে বলে তথ্য রয়েছে। এ বিষয়ে বিএনপির এই দুই নেতাকে ইতোমধ্যেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে আরও জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন রয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদকারীদের একটি সূত্র জানিয়েছে, গত বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর বোমা নিক্ষেপ করেছে। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। কার ইন্দনে পুলিশের ওপর অকারণে হামলা চালানো হয় এবং এর পেছনে কি উদ্দেশ্যে রয়েছে সেসব বিষয় জিজ্ঞাসাবাদ করে জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এছাড়া বিএনপি কার্যালয়ের ভেতর থেকে পুলিশ যেসব বোমা উদ্ধার করেছে, তা কারা কেন রেখেছিল, সে বিষয়েও ডিবি পুলিশ জিজ্ঞেস করেছে মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে।

এদিকে শুক্রবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ ঢাকা টাইমসকে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিএনপির এ দুই নেতাকে ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়েছে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সাদা পোশাকের পুলিশ তাদের বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন পরিবারের সদস্যরা।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম দাবি করেন- রাত দশটা থেকে উত্তরায় তাদের বাসার আশেপাশে অবস্থান নেয় গোয়েন্দা পুলিশ। রাত সাড়ে তিনটার দিকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় বিএনপি মহাসচিবকে।

অন্যদিকে রাত তিনটার দিকে বাসা থেকে মির্জা আব্বাসকে তুলে নিয়ে গেছে সাদা পোশাকের পুলিশ। এমন অভিযোগ তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাসের। তিনি জানান, বিএনপির শনিবারের সমাবেশের ভেন্যু পরিদর্শন শেষে বাসায় জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মির্জা আব্বাস। পরে নেতারা চলে গেলে একটি গাড়িতে করে তাকে নিয়ে যায় পুলিশ।

এর আগে মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে ঢাকায় গণসমাবেশের জন্য কমলাপুর স্টেডিয়াম ও বাংলা কলেজ মাঠ পরিদর্শন করে বিএনপির প্রতিনিধি দল। পরে মির্জা আব্বাস জানান, স্থায়ী কমিটির সাথে বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এদিকে, সমাবেশের ভেন্যুর বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বিএনপি। তবে আগামীকাল ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় গণসমাবেশ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দলটির নীতিনির্ধারণী মহল।

 

সর্বশেষ নিউজ