৩১ জানুয়ারী ২০২৩, মঙ্গলবার
--বিজ্ঞাপন-- Nagad

কে হচ্ছেন পরবর্তী রাষ্ট্রপতি, আলোচনায় যারা

বিশেষ প্রতিনিধি
spot_img

বাংলাদেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি কে হচ্ছেন তা নিয়ে সরকার এবং দলের ভিতরে বাইরে চলছে নানা আলোচনা। আলোচিত হচ্ছে হ্যাভিওয়েটদের কয়েকজনের নাম।

কে হচ্ছেন বঙ্গভবনের পরবর্তী বাসিন্দা- সেই নাম নিয়েও বিভিন্ন মহলে ব্যাপক কথাবার্তা হচ্ছে। ২৩ এপ্রিল শেষ হচ্ছে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন।

এদিকে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে নতুন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে। এর অংশ হিসেবে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম শুরু করেছে। কমিশনের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা শুক্রবার ঢাকা টাইমসকে বলেন, এ বিষয়ে আগামী সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচন কমিশন সভায় বিষয়টি আলোচনায় আসতে পারে। ১৯৯১ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন আইনের ৫ ধারা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তফসিল দেবে কমিশন।

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল দেশের ২০তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন আবদুল হামিদ। রাষ্ট্রপতি হিসেবে সফলতার সঙ্গে পাঁচ বছর দায়িত্ব পালনের পর তাকে দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার।
সংবিধান অনুযায়ী একজন রাষ্ট্রপতি দুই মেয়াদের বেশি নিয়োগ পাবেন না। সংবিধানের ৫০ অনুচ্ছেদ বলছে, একজন রাষ্ট্রপতি কার্যভার গ্রহণ থেকে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য দায়িত্ব পালন করবেন। ৫০(৩) অনুচ্ছেদ বলছে, একাধিক হোক বা না হোক দুই মেয়াদের অধিক রাষ্ট্রপতি পদে কোনো ব্যক্তি অধিষ্ঠিত থাকতে পারবেন না।

রেওয়াজ অনুযায়ী ক্ষমতাসীন দল আস্থাভাজনদের মধ্য থেকে কাউকে রাষ্ট্রপতি নিয়োগ দেয়। বিষয়টি নিয়ে সরকারের উচ্চ মহলে আলোচনা হয়। যেহেতু জাতীয় সংসদে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা আওয়ামী লীগের, ফলে ক্ষমতাসীন দল‌ই রাষ্ট্রপতি হিসেবে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেবে‌। যদিও শেষ সিদ্ধান্ত দেবেন প্রধানমন্ত্রী ও দলের প্রধান শেখ হাসিনা।

এদিকে রাজনৈতিক অঙ্গনে পরবর্তী রাষ্ট্রপতি কে হতে পারেন ধারণার ওপর বেশ কয়েকজনের নাম উচ্চারিত হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছেন স্পীকার শিরিন শারমিন চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মো: শাহাবুদ্দিন চুপ্পুসহ সরকার প্রধানের আস্থাভাজন কয়েকজনের নাম। এদের মধ্যে শাহাবুদ্দিন চুপ্পুর নাম আলোচনায় ছিল প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে। কিন্তু ওই পদে বসছেন সদ্য বিদায়ী ক্যাবিনেট সচিব কবির বিন আনোয়ার। ফলে বিকল্প কোনো জায়গায় তার স্থান হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অপরদিকে মতিয়া চৌধুরীর নাম‌ও উচ্চারিত হচ্ছে। বিকল্প হিসেবে তিনি সংসদের উপনেতা হিসেবেও আসতে পারেন। তবে এখন পর্যন্ত কোনো কিছু চূড়ান্ত নয়। সব‌ই অনুমান নির্ভর আলোচনা।

সরাসরি ভোটে নির্বাচিত নন রাষ্ট্রপতি। তিনি মুলত সংসদ সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত হন। এ লক্ষ্যে তফসিল ঘোষণাসহ এই নির্বাচন পরিচালনা করে নির্বাচন কমিশন। আর সিইসি রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন।

সর্বশেষ নিউজ