২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

দালাল পালেন চট্টগ্রাম কাস্টমসের অসাধু কর্মকর্তারা?

নিজস্ব প্রতিবেদক
spot_img

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজের শুল্কায়ন প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের একটি টিম বৃহস্পতিবার অভিযান পরিচালনা করেছে। দুদকের চট্টগ্রাম-১ কার্যালয় থেকে ৩ সদস্যের সমন্বয়ে গঠিত একটি এনফোর্সমেন্ট অভিযান পরিচালনায় নেতৃত্ব দেয়।

অভিযানকালে টিম অসাধু চক্রের উপস্থিতি পায়। প্রমাণ মেলে অসাধু কর্মকর্তাদের পছন্দসই দালাল চক্রের মাধ্যমে ঘুষ লেনদেন প্রক্রিয়া সম্পাদন হয়। রাসায়নিক ল্যাবের কার্যক্রমেও নানা অসঙ্গতি পায় টিম। এসময় টিমের সদস্যরা অভিযোগের বিষয়ে রেকর্ডপত্র সংগ্রহ করে।

এদিকে ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে পাসপোর্ট সেবা প্রদানে গ্রাহক হয়রানি এবং দালালের মাধ্যমে ঘুষ দাবির অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানের আগে এনফোর্সমেন্ট টিম সদস্যরা কার্যালয়ে ছদ্মবেশে ঝিনাইদহ পাসপোর্ট অফিসের আশে পাশের কম্পিউটার দোকান এবং পাসপোর্ট অফিসে গোপনে তথ্য সংগ্রহ করেন।

সংগৃহীত তথ্যে দেখা যায়, পাসপোর্ট আবেদনের পিছনে কে বা আর বা ‘ওকে’ লিখে স্বাক্ষর করা থাকে দালাল চক্রের। এ বিষয়ে দপ্তরের পরিচ্ছন্নতা কর্মী মোবাইল ফোনে অবৈধ লেনদেনের অর্থ সম্পর্কিত তথ্য পাওয়া যায়. ওই পরিচ্ছন্নতা কর্মী পাসপোর্ট অফিসের আইটি শাখায় কর্মরত।

কর্মচারী দীন ইসলাম নাহিদের মোবাইলে প্রায় লক্ষাধিক টাকা বিকাশ লেনদেনের প্রমাণ পাওয়া যায়। কর্মচারী মোহাম্মদ সোহেল কর্তৃক একাধিক দালালের সাথে যোগসাজশের প্রমাণ পায় এনফোর্সমেন্ট টিম।
এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন কমিশনে দাখিল করা হয়েছে

এছাড়াও দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) পাওয়া অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নিয়ে কমিশনকে অবহিত করার জন্য ৩টি দপ্তরে দুদক থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে

সর্বশেষ নিউজ