২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

ছাত্রলীগ বলছে তাদের শুধু জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিলো, নির্যাতনের শিকার দুই শিক্ষার্থী

চবি প্রতিনিধি
spot_img

 

শিবির সন্দেহে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ছাত্রাবাসে শিবির যে চার ছাত্রকে

পিটিয়ে আহত করা হয়েছে তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা খারাপ। চেকের আইসিও সাপোর্টে আছে তারা।

ছাত্রলীগ তাদের পিটিয়ে আহত করেছে‌ বলে অভিযোগ উঠেছে। ছাত্রলীগ নেতারা বলছেন, তাদের শুধুমাত্র জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। মানুষের সহানুভুতি পাওয়ার জন্য তারা আইসিইউতে ভর্তি হয়েছেন।

নির্যাতনের শিকার চার শিক্ষার্থী হলেন- জাহিদ হোসেন ওয়াকিল, সাকিব হোসেন, এম এ রায়াহান, মোবাশ্বের হোসেন শুভ্র। শুক্রবার দুপুরে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত নির্যাতনের শিকার দুই ছাত্র জাহিদ ও সাকিব হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন।

এর আগে গত বুধবার রাতে ছাত্রাবাস থেকে তুলে নিয়ে তাদের মারধরের অভিযোগ ওঠে। এরপর বৃহস্পতিবার হল থেকে উদ্ধার করে তাদের চমেক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এদিকে এ ঘটনার জেরে চমেক তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছে চমেকের অধ্যক্ষ ডা. সাহেনা আক্তার। তিনি বলেন, ‘নির্যাতিত ছাত্ররা বলছে না যে কেউ পিটিয়েছে কিনা, বা কারা পিটিয়েছে। শনিবার জেনারেল মিটিং হবে। সেখানে এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠনের পর ঘটনাটি তদন্ত করা হবে।’

অভিযোগ উঠেছে, চমেক ছাত্রলীগ নেতা অভিজিৎ দাশ, রিয়াজুল জয়, জাকির হোসেন সায়াল এবং মাহিন আহমেদের নির্দেশে ওই চার ছাত্রকে পেটানো হয়েছে। এরপর রায়হান ও শুভ্রকে একটি গাড়িতে তুলে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতারা ক্যাম্পাসে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচয় দেন বলে জানিয়েছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

চকবাজার থানার ওসি মনজুর কাদের মজুমদার বলেন, ‘এ ঘটনার পর এখনও কেউ থানায় অভিযোগ দেননি। খবর পেয়ে অধ্যক্ষ সহেনা ম্যাডামের নেতৃত্বে আমরা ওই দুই ছাত্রকে উদ্ধার করি।’

সর্বশেষ নিউজ