১২ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার

ভোরের রাজধানীতে ব্যাপরোয়া ছিনতাই, তিনজন গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভোরের রাজধানী অনেকটা নীরব থাকে। ভয়ংকর ছিনতাইকারীরা সুযোগটা ভালোভাবেই নেয়। মানুষ থাকে অসহায়। আশপাশে শুন্য।

অপরদিকে ছিনতাইকারীদের হাতে থাকে রামদা ছুরি কিংবা দেশি বিদেশি অস্ত্র। ফলে মানুষ খুব বিপদে পড়ে যায়।

তেমনি একটি ঘটনায় তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রাজধানীর মিরপুরে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতিকালে তালিকাভুক্ত ওই তিন ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার হয়। বৃহস্পতিবার ভোরে মিরপুর চিড়িয়াখানা রোডের সামনে থেকে তারা গ্রেপ্তার হয়।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহাসীন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. মফিজুল ইসলাম ওরফে সোহেল ওরফে মামা (৪৪), মোহাম্মদ আলী (৩৮) এবং ড্রাইভার মো. হান্নান মিয়া ওরফে হানিফ (২৮)।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কার, একটি চাপাতি, দুইটি ছুরি, লাঠি, চশমা এবং ফিতা উদ্ধার করা হয়।

ওসি মোহাম্মদ মহাসীন জানান, সংবাদে মিরপুর-১, রাইনখোলা, চিড়িয়াখানা রোডে একটি এক্সিউ মডেলের প্রাইভেট কার আটক করে এ তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গাড়ি তল্লাশি করে একটি চাপাতি, দুইটি ছুরি, একটি লাঠি, দুইটি ফিতা, একটি সানগ্লাস জব্দ করে।

তিনি আরও জানান, ছিনতাইকারী বেশিরভাগ সময় ভোরে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়ায়।

ভাড়ায় গাড়িতে যাত্রী উঠিয়েই তারা প্রথমেই যাত্রীকে গাড়ির ভিতরে ফিতা দিয়ে তার হাত বেঁধে ফেলে। চোখে চশমা পরিয়ে দেয়।

এরপর সঙ্গে থাকা সব টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে লাঠি দিয়ে পায়ে মারতে থাকে ও মোবাইলে বাসা থেকে টাকা আনতে বলে। এতে কেউ অস্বীকার করলে তখন চাপাতি ও ছুরি দিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। গ্রেপ্তার সোহেলের বিরুদ্ধে ২টি, মোহাম্মদ আলীর বিরুদ্ধে তিনটি এবং হানিফের বিরুদ্ধে ২টি মামলা রয়েছে।

২০১৩ সাল থেকেই তারা এ কাজ করে। গত দুই মাস আগে তারা জামিনে বেরিয়ে পুনরায় এই কাজ শুরু করে। এ কাজের জন্যই মাসে ৩০ হাজার টাকায় এক্সিউ প্রাইভেট কার ভাড়া নেয়।

এরা বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত হয়ে ছিনতাই করে থাকে।

সর্বশেষ নিউজ