২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বৃহস্পতিবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

সৈয়দ আশিক রহমানের ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাসের মোড়ক উন্মোচন

ডেক্স রিপোর্ট
spot_img

অমর একুশে বইমেলা ২০২৪’-এ প্রকাশিত বেঙ্গল মিডিয়া করপোরেশন লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমানের উপন্যাস ‘প্রেম পুরাণ’র মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। দেশের অনগ্রসর বেদে জাতিগোষ্ঠীকে নিয়ে ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাস সৈয়দ আশিক রহমানের তৃতীয় গ্রন্থ। বইটি পাওয়া যাবে মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশের ‘বেহুলা বাংলা’র ২২৪ ও ২২৫ নম্বর স্টলে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ‘বই উন্মোচন মঞ্চ’-এ বিকেল ৪টায় ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাসের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. শাহজাহান মাহমুদ, খ্যাতিমান গীতিকার কবির বকুল, আরটিভির অনুষ্ঠানপ্রধান দেওয়ান শামসুর রকিব, বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের প্রধান সুদেব চন্দ্র ঘোষ, উপবার্তাপ্রধান মামুনুর রহমান খান, মানবসম্পদ বিভাগের উপমহাব্যবস্থাপক আবু সাদেক মোহাম্মদ আলিম, সম্প্রচার ও প্রকৌশল বিভাগের প্রধান স্বপন ধর, ডিজিটাল অ্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়া প্রধান কবির আহমেদ, অনলাইন ইনচার্জ বিপুল হাসান ও বার্তা বিভাগের নির্বাহী প্রযোজক বেলায়েত হোসেনসহ অন্যরা।

মেলায় পাঠকদের অটোগ্রাফ দিচ্ছেন লেখক

অনুষ্ঠানে শামসুল হক টুকু বলেন, একটি অনগ্রসর জাতিকে ডিজিটাল বাংলাদেশের মানবসম্পদ হিসেবে কাজে লাগানোর জন্য যে অদম্য বাসনা বা ভাবনা, সেটি কয়জনের থাকে? এ ক্ষেত্রে সেটি সৈয়দ আশিক রহমান সেটি দেখিয়ে দিয়েছেন। পিছিয়ে পড়া জাতিগোষ্ঠীকে নিয়ে সৈয়দ আশিক রহমানের ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাস অনবদ্য ও অসামান্য।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, সৈয়দ আশিক রহমান তৃণমূল পর্যায়ের একটি বেদেগোষ্ঠীর জীবন-জীবিকাকে উপন্যাসে তুলে ধরেছেন, এটি সত্যিই ব্যতিক্রমী একটি কাজ। আমি আশা করব আপানার এই উপন্যাস পড়ে যারা বেদেদের জীবনী সম্পর্কে জানেন না, তারা জানতে পারবেন। সৈয়দ আশিক রহমান শুধু ওপরের তলার লোকদের নিয়েই নাটক-নোবেল না করে প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষদের উপন্যাসে তুলে এনেচেন, এটি প্রশংসনীয়।

লেখকের আরও দুটি বই ‘ভুবন ভ্রমিয়া শেষে’ ও ‘ভুবন ভ্রমিয়া শেষে ২’-এর প্রসঙ্গ টেনে গীতিকার কবির বকুল বলেন, সৈয়দ আশিক রহমান ভ্রমণপিপাসু মানুষ। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তিনি এর আগে দুটো ভ্রমণবিষয়ক বই লিখেছেন। এবারের বইটি একটু ভিন্ন। আমাদের অনগ্রসর বেদে সম্প্রদায়ের জীবনযাত্রা কেমন, আমরা কম-বেশি সেটি জানি। আমি মনে করি, ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাসটি পড়লে বেদে সম্প্রদায়ের জীবনযাত্রার বিভিন্ন খুটিনাটি বিষয় আমরা ভালোভাবে জানতে পারব।

সৈয়দ আশিক রহমান বইটির প্রারম্ভে লেখেন, জ্ঞান-বিজ্ঞানের উত্তরাধুনিক সময় একবিংশ শতাব্দী। এই সময়েও সভ্যতার মুখোশে মোড়ানো মানুষের মননকে জাত-ভেদ, ক্ষমতা-ক্ষীণতার ঘুণপোকা কুড়েকুড়ে খাচ্ছে। তাইতো দানবতা সংসার, সমাজ, রাষ্ট্র তথা বিশ্বজুড়ে। প্রান্তিক যে মানুষটি অগ্রসর হতে চায়, নিজেকে প্রমাণ করার মধ্যদিয়ে, তাকে চেপে ধরতে চায় চারপাশ।

সব প্রতিকূলতার মধ্যেও একজন বেদে সম্প্রদায়ের মেয়েকে উপজীব্য করে লেখা হয়েছে ‘প্রেম পুরাণ’ উপন্যাস। উপন্যাসটিতে আছে বেঁচে থাকার লড়াই। আছে অমর প্রেমের করুণ বাস্তবতা। আমি বিশ্বাস করি, আমার পাঠক এই উপন্যাস থেকে সেই উপলব্ধিগুলোকে খুঁজে পাবেন; যার মাঝে তিনি বেড়ে উঠেছেন এবং প্রতিনিয়ত কম-বেশি সেই বাস্তবতার মুখোমুখি হচ্ছেন।

উল্লেখ্য, সৈয়দ আশিক রহমানের জন্ম ১৯৭৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকায়। তিনি বেঙ্গল মিডিয়া করপোরেশন লিমিটেড আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে রয়েছেন। কর্মসূত্রে ভ্রমণ করেছেন দক্ষিণ এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ ও আমেরিকার বিভিন্ন দেশে। ভ্রমণবিষয়ক একাধিক গ্রন্থ প্রকাশ হলেও ‘প্রেম পুরাণ’ তার প্রথম উপন্যাস। তার প্রকাশিত গ্রন্থ ‘ভুবন ভ্রমিয়া শেষে’ (২০১৮), ‘ভুবন ভ্রমিয়া শেষে-২’ (২০২২)। এ ছাড়া চিত্রকলার প্রতি ভালোবাসার টানে লেখক আঁকাআঁকিতেও সময় দেন।

 

সর্বশেষ নিউজ