২৪ মে ২০২৪, শুক্রবার

লেবাননে ইসরায়েলের হামলায় ৪ শিশুসহ নিহত ৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
spot_img

লেবাননে ইসরায়েলি বাহিনীর ভয়াবহ হামলায় চার শিশুসহ নিহত হয়েছেন ৯ জন। নিহতদের সবাই বেসামরিক নাগরিক। লেবাননভিত্তিক সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর রকেট হামলায় ইসরায়েলি এক সেনা নিহতের জেরে এমন হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি তেলআবিবের। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার দক্ষিণ লেবাননের গ্রামগুলোতে ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় চার শিশুসহ নয় জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন বলে ওই অঞ্চলের এক হাসপাতালের পরিচালক এবং লেবাননের তিনটি নিরাপত্তা সূত্র নিশ্চিত করেছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বুধবার আল-সাওয়ানা গ্রামে ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় একজন নারী ও তার দুই সন্তান নিহত হয়েছেন বলে দুটি নিরাপত্তা সূত্র নিশ্চিত করেছে। আর শহরের হাসপাতালের পরিচালক হাসান ওয়াজনি এবং অন্য তিনটি নিরাপত্তা সূত্রের মতে, নাবাতিহের একটি ভবনে হামলায় আরও দুই শিশু, তিনজন নারী ও একজন পুরুষ নিহত হন।

ওয়াজনি রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ইসরায়েলি হামলার পর চিকিৎসার জন্য আরও সাতজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গোষ্ঠী এবং নিরাপত্তা সূত্রে জানা গেছে, আলাদা হামলায় চার হিজবুল্লাহ যোদ্ধাও নিহত হয়েছেন।

অবশ্য হিজবুল্লাহ বুধবার কোনও অভিযানের ঘোষণা দেয়নি। এর কার্যনির্বাহী পরিষদের প্রধান বলেছেন, বুধবার লেবাননের ভূখণ্ডে ইসরায়েলের হামলার কড়া জবাব দেয়া হবে।

এদিকে, তেলআবিব জানিয়েছে, হিজবুল্লাহর রকেট হামলার প্রতিক্রিয়ায় তারা এই হামলা চালিয়েছে। লেবাননের ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠীর ওই হামলায় এক ইসরায়েলি নারী সেনা নিহত হন। বুধবার সকালে লেবানন থেকে রকেট হামলায় আহত অন্য আটজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

গত বছরের অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে গাজায় আগ্রাসী হামলা শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। চার মাস ধরে চলমান সেই অভিযানের শুরু থেকে এ পর্যন্ত গাজায় নিহত হয়েছেন ২৮ হাজারেরও বেশি মানুষ, আহত হয়েছেন আরও প্রায় ৬৭ হাজার ফিলিস্তিনি।

গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর সেই সশস্ত্র অভিযান শুরুর কয়েক দিন পর থেকেই হামাসের প্রতি সংহতি জানিয়ে লেবানন-ইসরায়েল সীমান্ত এলাকায় রকেট ও ড্রোন হামলা শুরু করে হিজবুল্লাহ। জবাবে ইসরায়েলের সেনাবাহিনীও পাল্টা হামলা অব্যাহত রাখে।

সর্বশেষ নিউজ