১২ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার

তবে কি নতুন মোটর সাইকেলই কাল হলো দীপ্ত’র?

নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলে দীপ্ত সাহা নামের বাইশ বছরের এক তরুণ কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত তরুণ সদর উপজেলার হোগলা ডাঙ্গা গ্রামের দ্বীনো সাহার ছেলে এবং নড়াইল সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থী।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকালে এলাকায় নামযজ্ঞের মেলায় দেখার উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন দীপ্ত সাহা। পরদিন স্থানীয় একটি মাছের ঘের থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

২৫ তারিখ সকালে দীপ্তর বাড়ি থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে উত্তম সাহা নিজ মাছের ঘেরে কাজে গিয়ে একটি হাত-পা বাধা মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে খবর দেন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পানি থেকে কলেজছাত্রের মরদেহটি উদ্ধার করে। পুলিশ জানিয়েছে, তার গলায় ফাঁসের দাগ রয়েছে। যদিও মোটরসাইকেলটির কোন হদিস পাওয়া যায়নি, তবে পুলিশ নিহতের পকেট থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করেছে।

নতুন কেনা এ্যাপাচি ফোর ভি মোটর সাইকেল ছিনতাই করতে তাকে খুন করা হতে পারে বলে স্থানীয়দের অনেকেই মনে করছেন। বাশগ্রাম ইউ্নিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম জানান, একমাত্র ছেলে হওয়ায় সব সময় দীপ্ত’র আবদার মিটানো হতো; কিছুদিন আগেই তাকে নতুন মোটর সাইকেল কিনে দেয়া হয়।

দীপ্ত সাহার বাবা দ্বীনো সাহা জানান, ‘শুক্রবার শ্যাম্পু দিয়ে মোটর সাইকেলটি ধুয়ে বিকালে বাড়ি থেকে বের হয় সে। রাত ৯টার দিকে বাড়িতে এসে শুনি নামযজ্ঞের মেলা দেখার জন্য বের হইছে। আমি সারারাত দরজা খুলে ঘুমিয়েছি কখন সে আসবে। সকালে মনে করেছি হয়তো কোন বন্ধুর বাড়িতে আছে।’ দ্বীনো সাহা আরও বলেন, ‘ আমি গরীব মানুষ ছেলেটাকে মোটরসাইকেল কিনে দিছি কষ্ট করে। তোরা মোটরসাইকেলটা নিলি আমার বাবাকে কেন মারলি?’

এ বিষয়ে নড়াইলের পুলিশ সুপার সাদিরা খাতুন বলেন, ‘এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে এই হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। আমরা অতি দ্রুত মামলা ডিটেক্ট করে তদন্ত করে দেখছি এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কারা জড়িত।’

সর্বশেষ নিউজ