২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে চাঁদা দাবির অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার 

সাতক্ষীরা‌ প্রতিনিধি
spot_img

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে পিরোজপুর সদর থানার এ.এস.আই রুবেল হোসেনসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি রিভালবার, ৮ রাউন্ড গুলি সহ একটি ম্যাগাজিন, দুটি হ্যান্ড কাপ ও একটি প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার গদাইপুর গ্রামের আব্দুল আলিম সানার ছেলে পিরোজপুর সদর থানার এ.এস.আই রুবেল হোসেন ওরফে রানা (৩০), তার সঙ্গি পিরোজপুর জেলা সদরের পান্তাাদুবি গ্রামের রহম আলী শেখের ছেলে মনির হোসেন (৩৫), একই গ্রামের আনোয়ারুল শিকদারের ছেলে সোহেল শিকদার (৩৩), একই উপজেলা সদরের চর লোহারকাটি গ্রামের ইউনুস মৃধার ছেলে আবুল কালাম (৩৫) ও শিকারপুর গ্রামের মালেক মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩২)।

শুক্রবার রাতে আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কল্যাণপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, পিরোজপুর সদর থানার এ,এস,আই রুবেল হোসেন তার চার সঙ্গীকে নিয়ে একটি প্রাইভেটকারে চড়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কল্যাণপুর গ্রামের রওশন আলী মোল্যার ছেলে আশিকুর রহমানের কাছে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে এএসআই রুবেল হোসেন তাকে গ্রেফতারের হুমকি দেয়। এসময় গ্রাম বাসী তাদের আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপার্দ করে।

এঘটনায় আশাশুনি উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের রওশন আলী মোল্যার ছেলে আশিকুর রহমান ওরফে আশিক বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মমিনুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এইদিন এইসময়কে বলেন, এঘটনায় ২টি হ্যান্ডক্যাপ, একটি রিভলবর ও ৮রাউন্ড গুলি সহ একটি ম্যাগজিন এবং আসামীদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্ধ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ