২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বৃহস্পতিবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

সাতক্ষীরায় বাল্যবিয়ে, কনের মাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

মিহিরুজ্জামান সাতক্ষীরা
spot_img

সাতক্ষীরার তালার কুমিরা ইউনিয়নে নবম শ্রেনীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দেওয়ার অপরাধে কনের মাকে ১০ হাজার জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে এক মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার  সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) মো.রহুল কুদ্দুস ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এ আদেশ প্রদান করেন।

অভিযুক্ত ব্যক্তি হলেন,তালা উপজেলার কুমিরা গ্রামের সুধা বাবু সরকারের ছেলে ও নবম শ্রেনীতে পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী বৃষ্টি সরকারের (১৪) পিতা রনজিত সরকার।

জানা যায়, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা গ্রামের বিনয় সরকারের ছেলে প্রসেনজিৎ সরকারের (২৩) সঙ্গে তালা উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের রনজিত সরকারের কন্যা বৃষ্টি সরকারেকে পোপনে বাল্যবিবাহ দেন পিতা-মাতা।

গত শুক্রবার(৩ মার্চ) উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার এমন খবর জানতে পেরে কুমিরা ইউনিয়ন কিশোর কিশোরী ক্লাবের সংগীত শিক্ষক শম্পা ভট্টাচার্যকে ঘটনাস্থলে পাঠান। বর কনে তখন কুমিরায় মেয়ের বাবার বাড়ি অবস্থান করছিলো। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে গ্রাম পুলিশ কোমল দেব নাবালিকার মাতাকে ইউএনও অফিসে হাজির করান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) মো.রহুল কুদ্দুস ভ্রাম্যমাণ আদালতে “বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারা” অনুযায়ী ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনদায়ে ১ মাসের কারাদন্ডসহ নাবালিকা স্কুল পড়ুয়া ছাত্রী ১৮ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার জানান, নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী বৃষ্টি সরকার ইউনিয়ন কিশোর কিশোরী ক্লাবে গত বছর সদ্যসা ছিল। তাকে পিত্রালয়ে এনে পড়াশুনা করানোর নির্দেশ প্রদান করেছি। আমরা তালা উপজেলায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করতে সচেষ্ট আছি।

সর্বশেষ নিউজ