২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার
--বিজ্ঞাপন-- Bangla Cars

চিকিৎসা নিতে বিদেশ যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
spot_img

শর্তসাপেক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেয়ার বিষয়ে সুপারিশ করেছে আইন মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয় নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের তথ্য জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

এর আগে খালেদা জিয়ার সাজা স্থাপিতের মেয়াদ বাড়িয়ে বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার বিষয়ে সরকারের কাছে আবেদন করেন খালেদা জিয়ার পরিবার। ওই আবেদনে আইন মন্ত্রণালয় সুপারিশ করেছে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, খালেদা জিয়া চিকিৎসা নিতে যেন বিদেশ যেতে পারেন সে বিষয়ে তার পরিবারের করা আবেদনে সুপারিশ করেছে আইন মন্ত্রণালয়।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়ার এখতিয়ার সরকারের নেই, আদালতের।

জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাসের জন্য বাড়তে যাচ্ছে সরকার। শর্ত সাপেক্ষে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মতামতও পাঠিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়।

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার ৬ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন। এবারের আবেদনেও তার মুক্তির শর্ত শিথিল করে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার অনুমতি চাওয়া হয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাজা হলে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাজীবন শুরু হয় খালেদা জিয়ার। পরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায়ও তার সাজার রায় হয়।

২০২০ সালে দেশের মহামারী করোনাভাইরাসের প্রকোপের মধ্যে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার নির্বাহী আদেশে খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত করে দুটি শর্তে ছয় মাসের মুক্তি দেয়। শর্ত দুটি হচ্ছে, খালেদা জিয়া বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন দ্বিতীয়ত বিদেশ যেতে পারবেন না।

২০২০ সালের ২৫ মার্চ কারাগার থেকে মুক্ত হন খালেদা জিয়া। এরপর পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৬ দফায় ৬ মাস করে তার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ায় সরকার।

উল্লেখ্য, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বহু বছর ধরে আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস, চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। তাকে বিদেশে চিকিৎসার দাবি জানিয়ে আসছে বিএনপি।

সর্বশেষ নিউজ